1. darilymukitdak@gmail.com : Mukti TV HD : Mukti TV HD
  2. info@muktitv24.com : muktitv :
  3. banglahost.net@gmail.com : rahad :
শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:০০ পূর্বাহ্ন

মডেল প্রকল্পের আওতায় বিরামপুর রেলস্টেশন

বিরামপুর (দিনাজপুর)প্রতিনিধি-
  • Update Time : রবিবার, ২২ আগস্ট, ২০২১
  • ৮৯ Time View

পশ্চিমাঞ্চলের ২৬টি রেলস্টেশনকে ‘মডেল’ হিসেবে তৈরীর উদ্যোগ নিয়েছে বর্তমান সরকার। প্রায় ১৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে সেগুলো আধুনিকায়ন করা হবে। সেই মডেল প্রকল্পের তালিকায় রয়েছে দিনাজপুরের বিরামপুর রেলস্টেশন। এ উদ্যোগ ও প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে আধুনিকায়ন ও মডেল স্টেশন হবে বিরামপুর রেলস্টেশন। এতে এলাকার যাতায়াত ব্যবস্থা, ব্যবসা-বাণিজ্য, কৃষি ও শিক্ষা ত্বরান্বিত হবে।

যাত্রী মতিয়ার রহমান বলেন,এ অঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক কেন্দ্রবিন্দু শহর হচ্ছে বিরামপুর। আধুনিকায়ন ও মডেল প্রকল্পের আওতায় এটি জায়গা করে নিয়েছে। তা দিনের আলো দেখলে এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থা পাল্টে যাবে। সেই সঙ্গে বিরামপুরের মাটি ও মানুষের বহুদিনের প্রাণের দাবী “বিরামপুর জেলা” বাস্তবায়িত হলে বিরামপুর রেলস্টেশনের আরো যাত্রী যাতাযাতের গুরুত্ব অনেক গুণ বেড়ে যাবে। এ স্টেশনের রাজস্ব আয় বেড়ে হবে প্রায় তিনগুন ।

যাত্রী রবিউল ইসলাম বলেন, ভুতুড়ে এই রেলস্টেশনটিতে যাত্রীদের তেমন বসার শেড, যাওয়া-আসার জন্য ওভার ব্রিজও নেই। মডেল প্রকল্পের আওতায় এটি আধুনিকায়ন হলে খুব সুন্দর হবে। সেই সঙ্গে যাত্রীসেবা ও বৃদ্ধি পাবে।

বিরামপুরে কর্মরত রেলস্টেশন মাষ্টার মো: মিজানুর রহমান বলেন, এখান থেকে আপ ও ডাউন রুটে সাতটি করে আন্ত:নগর ট্রেন চলাচল করে। এছাড়াও বেসরকারী খাতে চারটি ট্রেন চলাচল করে। এখান থেকে রেলের মাসিক রাজস্ব আয় হয় প্রায় ৩৫ থেকে ৩৭ লাখ টাকা। তিনি আরো বলেন, বিরামপুর রেলস্টেশন দিয়ে দ্বিতীয় শ্রেণির ট্রেন চলে। যাতে যাত্রীর চাহিদা তুলনায় আসন সংখ্যা ও সীমিত। এখানে কোনো ট্রেনের প্রথম শ্রেণির আসন বরাদ্দ নেই। শুধু নীলসাগর এক্সপ্রেসে এসি আসন বরাদ্দ রয়েছে। তবে ঢাকা, খুলনা ও রাজশাহীগামী আন্ত:নগর ট্রেনে তা নেই। তাই এর আধুনিকায়ন করা হচ্ছে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মিহির কান্তী গুহ বলেন, মডেল প্রকল্পের আওতায় বিরামপুর রেলস্টেশন। এ প্রকল্পের আওতায় বিরামপুর রেলস্টেশনকে ঢেলে সাজানো হবে। প্ল্যাটফর্ম উঁচু ও বড় হবে। সেই সঙ্গে দুটি প্ল্যাটফর্ম হবে। যাত্রী আসা-যাওয়ার জন্য ফুটওভার ব্রীজ নির্মাণ হবে। নারী ও পুরুষের আলাদা শৌচাগার থাকবে। যাত্রীদের বসার জন্য সুন্দর শেড থাকবে। থাকবে বঙ্গবন্ধু ও ফুড কর্ণার। এক কথায় উন্নত যাত্রীসেবা নিশ্চিত করা হবে। এছাড়াও চুরি, ছিনতাই, হিজড়াদের উপদ্রব, অজ্ঞান পার্টির খপ্পর ও দূর্ঘটনা থেকে রেলযাত্রীদের রক্ষায় স্টেশনে একটি জিআরপি ফাঁড়ি স্থাপনের দাবী এলাকাবাসীর।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category